আফগানিস্তানের হেরাতে ছেলেমেয়েদের একসঙ্গে পড়ালেখা নিষিদ্ধ

আফগানিস্তানের হেরাত প্রদেশে সরকারি ও বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে একসঙ্গে পড়াশোনা করতে পারবেন না ছেলে ও মেয়েরা। গত রবিবার আফগানিস্তান দখল নিশ্চিত করার পর হেরাতে প্রথম নির্দেশনা জারি করল তালেবান।

শনিবার ওই প্রদেশের বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার পরই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংগঠনের নেতৃত্ব। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে তেমনটিই উল্লেখ করা হয়েছে।

হেরাত প্রদেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়-সহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যাপকদের সঙ্গে তিন ঘণ্টার বৈঠকের পর তালেবান নেতা মোল্লা ফরিদ বলেন, ‘সমাজে পচন ধরার মূলেই রয়েছে ছেলেমেয়েদের একসঙ্গে শিক্ষা। বিকল্প কোনও রাস্তা নেই। ছেলেমেয়েদের একসঙ্গে পড়াশোনা বন্ধ করতে হবে। নারী অধ্যাপকেরা শুধু মেয়েদেরই পড়াতে পারবেন।’

২০০১ সালে তালেবানি শাসনের প্রথম-পর্ব শেষ হওয়ার পর গত দুই দশক ধরে আফগানিস্তানে ছেলেমেয়েদের একসঙ্গে পড়াশোনা বা ‘কো-এডুকেশন’ শিক্ষানীতি চালু ছিল সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। আফগানিস্তানে তালেবান-রাজত্ব ফিরতেই হেরাতে ফের পুরনো নীতি চালু করা হলো।

দেশটির শিক্ষাবিদরা মনে করছেন, তালেবান নেতৃত্বের এই সিদ্ধান্তের জেরে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর বিশেষ সমস্যা না হলেও বেকায়দায় পড়বে বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলো।

(ঢাকাটাইমস/২১ আগস্ট/এসইউএল)

READ  不近人情 ︳丈夫變植物人申請殘疾證 妻子:被要求丈夫親身交表 - 晴報 - 家庭 - 家居

Lascia un commento

Il tuo indirizzo email non sarà pubblicato. I campi obbligatori sono contrassegnati *