বুকার পুরস্কার পেলেন দক্ষিণ আফ্রিকার ড্যামন গ্যালগাট

ঔপন্যাসিক ড্যামন গ্যালগাট। ছবি : সংগৃহীত

“> title=

ঔপন্যাসিক ড্যামন গ্যালগাট। ছবি : সংগৃহীত

‘দ্য প্রমিস’ উপন্যাসের জন্য ২০২১ সালের বুকার পুরস্কার পেয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার লেখক ড্যামন গ্যালগাট। এর আগে ২০০৩ ও ২০১০ সালেও বুকারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় ছিলেন গ্যালগাট। কিন্তু, তখন তাঁর ভাগ্য সুপ্রসন্ন হয়নি। সংবাদমাধ্যম ডয়চে ভেলে এ খবর জানিয়েছে।

বুকার পুরস্কারের অর্থমূল্য ৫০ হাজার পাউন্ড, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫৮ লাখ টাকার বেশি।

মাত্র ১৭ বছর বয়স থেকে লিখছেন ড্যামন গ্যালগাট। তিনি মূলত উপন্যাস ও নাটক লেখেন। তিনি এর আগে তাঁর অষ্টম বই ‘আর্কটিক সামার’-এর জন্য সানডে টাইমসের পুরস্কার পেয়েছেন।

ড্যামন বলেছেন, ‘পুরস্কার পেয়ে আমি স্তম্ভিত। এ জায়গায় পৌঁছাতে আমার অনেক সময় লাগল। এখন আমার মনে হয়—আমি এর যোগ্য নই। এ পুরস্কার আমি আফ্রিকার সব লেখকদের উৎসর্গ করলাম। এ সুন্দর মহাদেশ থেকে যেসব গল্প লেখা হয়েছে, সেগুলোর পক্ষ থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করব।’

নিজের সর্বশেষ উপন্যাসে দক্ষিণ আফ্রিকার একটি শ্বেতাঙ্গ কৃষক পরিবারের গল্প বলেছেন ড্যামন। চার দশক ধরে তারা দক্ষিণ আফ্রিকায় আছে। সে পরিবারের নারীর মৃত্যুকালীন ইচ্ছা বা প্রতিশ্রুতি ছিল—তাদের সম্পত্তি থেকে একটা বাড়ি একজন কৃষ্ণাঙ্গ নারীকে উপহার দিতে হবে। সে নারী সারা জীবন ধরে শ্বেতাঙ্গ পরিবারে কাজ করেছেন। কিন্তু, মায়ের শেষ ইচ্ছা পূরণ করা নিয়ে সন্তানদের মধ্যে মতবিরোধ শুরু হয়।

ড্যামন বলেছেন, ‘বর্ণবিদ্বেষী রাষ্ট্রের পতন হয়েছে। কিন্তু, মানসিকতায় বর্ণবিদ্বেষ এখনও আছে। এটাই এ উপন্যাসের মূল তত্ত্ব। আইনত বর্ণবাদ নিষিদ্ধ। কিন্তু, অর্থনীতি তাদের সে জায়গায় দাঁড় করিয়ে রেখেছে, যেখানে তারা আগে ছিল।’

READ  FOTO-Movie - România și NATO se încordează în fața Rusiei în Marea Neagră: amplu exercițiu militar organizat de Forțele Navale - Stiri pe surse

Lascia un commento

Il tuo indirizzo email non sarà pubblicato. I campi obbligatori sono contrassegnati *